দায়িত্ববান চরিত্র ‘সন্ধ্যা’ থেকে হাসির পাত্রী হয়ে উঠেছে ‘অন্বেষা’! ‘সন্ধ্যাতারা’র লেখিকার উপর ক্ষিপ্ত ভক্তরা

স্টার জলসার (Star Jalsha) জনপ্রিয় ধারাবাহিক হল ‘সন্ধ্যাতারা’ (Sandhyatara)। শুরু হওয়ার কিছুদিনের মধ্যেই টিআরপিতে বেশ ভালো স্কোর করে এই ধারাবাহিক। মেগাটি আরও বেশি জনপ্রিয় হওয়ার কারণ, নায়িকা হিসাবে রয়েছেন আমাদের সকলের প্রিয় অন্বেষা হাজরা (Annwesha Hazra)। তাঁর অভিনয় তাবড় তাবড় তারকাদের কাছেও প্রশংসিত। দুষ্টু – মিষ্টি সেই অন্বেষা ‘সন্ধ্যাতারা’তে সন্ধ্যার চরিত্রে অভিনয় করছেন।

ধারাবাহিকে সন্ধ্যা ও তারা (Tara) দুই বোন। ছোট বোন তারার ভূমিকায় রয়েছেন অমৃতা দেবনাথ (Amrita Debnath)। দুজনের ভালোবাসার মানুষ একজনই আকাশ (Akash) ওরফে সৌরজিৎ ব্যানার্জি (Sourajit Byanejee)। কিন্তু ছোট বোন নিজের স্বার্থকে দূরে রেখে বড় বোনের সঙ্গে আকাশের বিয়ে দেয়। এদিকে সন্ধ্যা তারার এই ভালোবাসার কথা এখনও জানে না।

গল্পটি যত না মন ছুঁয়েছে, তার থেকেও জমে উঠেছে সন্ধ্যার চরিত্রটি। পাশাপাশি ধারাবাহিকে সন্ধ্যা ও তার শাশুড়ি বিজয় মাঠানের মিষ্টি – মধুর সম্পর্ক দর্শকদের খুব ভালো লেগেছে। প্রথমদিন থেকে সন্ধ্যাকে আমরা দেখে এসেছি অন্যান্য মেয়েদের থেকে আলাদাভাবে। রাগ, তেজ যুক্ত পরিশ্রমী এক মেয়ে সে। সংসারের জন্য রোজগারের সকল দায়িত্ব সন্ধ্যা পালন করত। চাষের জমিতে দিন – রাত খেটে বোনের পড়াশোনার সকল দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছিল সন্ধ্যা।

বড় দিদি হিসাবে সন্ধ্যার এই চরিত্র খুব পছন্দ হয় দর্শকদের। বাড়ির সকলের প্রতি সন্ধ্যা যে দায়িত্ব পালন করত, তা সত্যি তুলনাহীন। তবে বর্তমানে সন্ধ্যার বিয়ে হয়ে যাওয়ার পর থেকে লেখিকা সেই জায়গা থেকে সন্ধ্যাকে সরিয়ে দিয়েছে। আকাশের মনে নিজের জায়গা করার জন্য সন্ধ্যাকে দিয়ে লেখিকা আজব আজব কান্ড ঘটাচ্ছে। একজন দায়িত্ববান মেয়ে যেসকল অদ্ভুত কান্ডগুলো ঘটিয়ে চলেছে, তা সত্যি অবিশ্বাস্যকর।

অনেক দর্শকদের মতে, একটা ভালো চরিত্রকে খিল্লি বানিয়ে ছাড়ছেন লেখিকা। এমন এমন মজার কান্ড ঘটাচ্ছে সন্ধ্যা, যা একটা দায়িত্ববান মেয়েকে ‘জোকার’ করে তুলছে। বেশকিছু দর্শকদের ধারণা, টিআরপির জন্য এমন এমন কান্ড ঘটানো হচ্ছে। তবে সন্ধ্যার মতো একটা ভালো চরিত্র হারিয়ে যেতে বসেছে, বদলে হাসির পাত্রী হয়ে দাঁড়িয়েছে সন্ধ্যা। যা একেবারেই পছন্দ করছেন অন্বেষার কিছু ভক্ত।

Back to top button